For English Version
মঙ্গলবার, ১২ ডিসেম্বর, ২০১৭
হোম বেড়িয়ে আসুন

সমুদ্রতলে স্কুবা ড্রাইভিং

Published : Thursday, 7 December, 2017 at 4:32 PM Count : 39

ভ্রমণের ক্ষেত্রে বেশিরভাগেরই পছন্দ স্থলের উপরিভাগে। কিন্তু কখনো কি মনে হয় না যে একবার পানির তলদেশে ঘুরে আসা যাক। তবে এ ধরণের ভ্রমণের জন্য দেশের বাইরে নয়, আমাদের নিজেদের দেশ সেন্টমার্টিনেই এখন করতে পারেন স্কুবা ডাইভিং কিংবা স্নোর্কেলিং।

বিজ্ঞান বলে, জীবনের উৎপত্তি হয়েছিল জল থেকে। তাই জলের প্রতি, জলজ জীবনের প্রতি মানুষ অকৃত্তিম টান বহন করছে আসছে তার জিনে, সৃষ্টির শুরু থেকে। ফুসফুস দিয়ে অক্সিজেন গ্রহণের কাজ সারে মানুষ, মাছেদের মতো ফুলকা নেই, তাই যখন তখন পানিতে ডুব দিয়ে জলজ জীবন উপভোগের সুযোগ হয়না মানুষের। অথচ সমুদ্রের নিচের আশ্চর্য জগত তাকে টানে পুরোদমে। তাই স্কুবা ড্রাইভিং অসম্ভব জনপ্রিয় এডভেঞ্চার প্রিয়দের কাছে।

বাইরের যেই পৃথিবীটা আমরা দেখি, প্রতিনিয়ত বদলে যাচ্ছে তা। যেখানে ঘন জঙ্গল ছিল, সেখানে গড়ে উঠছে অট্টালিকার পাহাড়। সরু পায়ে চলা পথ বদলে হাইওয়ে হয়ে যাওয়া এখানে নিয়মিত ঘটনা। অথচ সমুদ্র তল সেই যে ছিল লক্ষ কোটি বছর আগে, এখনো তার অনেকটাই তেমনি আছে। যতটুকু পরিবর্তন, ডাঙার সঙ্গে তুলনা করলে তা খুব কম। তাই সমুদ্রের গভীরে ডুব দেয়া অনেকটা সময় পরিভ্রমণের মতই। মূহুর্তে চলে যাওয়া এক আদিম পৃথিবীতে। তাই স্কুবা ডাইভিং মানে শুধু পানির সমুদ্রেই ডুব দেয়া নয়, বিচিত্র জীববৈচিত্র্য আর রঙের সমুদ্রের ডুব দেয়া, ডুব দেয়া সময়ের সমুদ্রে।

সবথেকে কাছে পিঠে এবং কম খরচে স্কুবা ডাইভিং এর জন্য যেতে পারেন বাংলাদেশের একমাত্র প্রবাল দ্বীপ সেন্টমার্টিনে। সেন্টমার্টিনের স্বচ্ছ সমুদ্রের নিচে দেখা মিলবে বিচিত্র সব হার্ড ও সফট জীবন্ত কোরালের। দেখা পাবেন বহুবর্ণের জলজ উদ্ভিদের। পানির নিচে খুব অল্প জায়গাতেই এত রঙের সমাহার যে ডাঙ্গায় তা একসঙ্গে খুব কমই দেখা যায়। প্রতিবছর হাজার হাজার পর্যটক সেন্টমার্টিনে যান প্রাকৃতিক সৌন্দর্য উপভোগ করতে, অথচ মাত্র মাইলখানেকের ভিতরেই সমুদ্রের নীচে যে বিপুল ঐশ্বর্য্য আছে তা অজানাই থেকে যায় তাদের।

বাইরে থেকে দেখতে যতটা উত্তাল সমুদ্র, পানির নিচে ততটাই শান্ত। প্রাগৈতিহাসিক কালের এই প্রকৃতি সেখানে অনাদি কাল থেকে স্থির হয়ে আছে। কৃত্তিম অক্সিজেন ভর্তি ট্যাঙ্ক নিয়ে পানির গভীরে যখন আপনি যাবেন, হিসাব রাখতে পারবেন আপনার প্রতিটি নিশ্বাসের, আলাদা করে অনুভব করতে পারবেন আপনার এক একটি মুহূর্ত। মাছেদের সঙ্গে সাতার কাটতে কাটতে আপনি ভালোবেসে ফেলবেন অদ্ভুদরকম শান্ত সুন্দর ওই জগতটাকে। আপনার হয়তো আর ফিরতেই ইচ্ছা করবে না।

Diving Instructors World Association (DIWA) এর চিফ স্কুবা ইনস্ট্রাকটর জনাব মুজিবুর রহমান বলছিলেন, ‘সমুদ্র তলের জীবন দেখার নেশা, মারাত্মক নেশা’। তাই হয়তো একবার এই নেশায় পেয়ে বসার পর অন্য আর কিছুতেই থিতু হতে পারেননি তিনি। নেশা এবং পেশা হিসেবে স্কুবা ড্রাইভিংকেই বেঁছে নিয়েছেন।

২০০৭ সালে তার প্রতিষ্ঠান বেসরকারীভাবে সেন্টমার্টিনে স্কুবা ড্রাইভিং করানো শুরু করে। তখন থেকে এডভেঞ্চার প্রিয়দের জন্য ঢাকা ড্রাইভার্স ক্লাব ও মুজিবুর রহমান প্রিয় এক নাম। ভবিষ্যৎ এ কাপ্তাই লেক ও টাংগুয়ার হাওড়েও ড্রাইভিং চালু করার পরিকল্পনা রয়েছে তার।

জার্মান থেকে সনদপ্রাপ্ত এ ডাইভার বর্তমানে রিক্রিয়েশনাল ডাইভ ছাড়াও ওপেন ওয়াটার ডাইভিং এর বেসিক থেকে শুরু করে ডাইভিং মাস্টার পর্যন্ত প্রশিক্ষণ ও সার্টিফিকেট প্রদান করেন তিনি। ডাইভিং প্রশিক্ষণ নিয়ে দেশে বিদেশে আন্ডারওয়াটার ফটোগ্রাফি, ব্রীজসহ বিভিন্ন কন্সস্ট্রাকশন সাইট, রেসকিউ এজেন্ট, স্কুবা ট্রেনারসহ বিভিন্ন খাতে হিসেবে কাজ করার সুযোগ রয়েছে বলে জানান তিনি।

SCUBA এর পুরো অর্থ হল Self-contained underwater breathing apparatus. অর্থাৎ পানির নিচে নিশ্বাসের পুরো নিয়ন্ত্রণ অভিযাত্রীর নিজের হাতে থাকে। তাই সমুদ্রতলের জগত দেখার জন্য এর থেকে ভালো উপায় আর কিছু নেই। সবথেকে সহজে নিজেকে এই অপার্থিব জগতের মুখোমুখি করতে আপনাকে যেতে হবে সেন্টমার্টিনের সমুদ্রতলে।

-এমএ








« PreviousNext »



সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
Editor : Iqbal Sobhan Chowdhury
Published by the Editor on behalf of the Observer Ltd. from Globe Printers, 24/A, New Eskaton Road, Ramna, Dhaka.
Editorial, News and Commercial Offices : Aziz Bhaban (2nd floor), 93, Motijheel C/A, Dhaka-1000. Phone :9586651-58. Fax: 9586659-60, Advertisement: 9513663
E-mail: info@dailyobserverbd.com, news@dailyobserverbd.com, advertisement@dailyobserverbd.com,   [ABOUT US]     [CONTACT US]   [AD RATE]   Developed & Maintenance by i2soft